আমরা কিভাবে আপনাকে সাহায্য করতে পারি?

এছাড়াও আপনি নিচের টপিকগুলো থেকে নিজের পছন্দের বিষয়টি খুঁজে নিতে পারেন।

দুই দিক থেকে এনক্রিপশন

নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা আমাদের ডিএনএ তে আছে, যে কারণে আমরা আমাদের অ্যাপের সাম্প্রতিক সংস্করণে দুই দিক থেকে এনক্রিপশন যোগ করেছি। যখন দুই দিক থেকে এনক্রিপ্টেড থাকবে, তখন আপনার বার্তা, ফটো, ভিডিও, ভয়েস বার্তা, ডকুমেন্ট, স্থিতির আপডেট এবং কল ভুল হাত থেকে সুরক্ষিত থাকবে।

যখন আপনি এবং আপনি যাকে বার্তা পাঠাচ্ছেন দুইজনই WhatsApp এর সাম্প্রতিক সংস্করণ ব্যবহার করবেন তখন দুই দিক থেকে এনক্রিপশন কাজ করবে।

WhatsApp এর দুই দিক থেকে এনক্রিপশন নিশ্চিত করে যে আপনি, এবং আপনি যার সাথে যোগাযোগ করছেন শুধু সেই যা পাঠানো হচ্ছে তা পড়তে পারবে, অন্য কেও না, এমনকি WhatsApp ও না। আপনার বার্তাগুলো লক দিয়ে সুরক্ষিত এবং সেটা খোলার চাবি শুধুমাত্র আপনি এবং প্রাপকের কাছে আছে। বাড়তি সুরক্ষার জন্য, আপনি যত বার্তা পাঠাবেন সবগুলোর একটি একক লক এবং চাবি থাকবে। এগুলো সব স্বয়ংক্রিয়ভাবেই হয়ে তাকে: কোন সেটিংস চালু করার প্রয়োজন নেই অথবা বার্তা নিরাপদ করতে কোন বিশেষ গোপন চ্যাট ও খোলার ও দরকার হবে না।

গুরুত্বপূর্ণ: যদি সবাই WhatsApp এর সর্বশেষ সংস্করণ ব্যবহার করে তাহলে দুই দিক থেকে এনক্রিপশন সবসময়েই চালু থাকবে। দুই দিক থেকে এনক্রিপশন বন্ধ করার কোন উপায় নেই।

পরিচিতি তথ্যের স্ক্রিনে "নিরাপত্তা কোড যাচাই" এর মানে কি?

আপনাদের প্রত্যেকটি চ্যাটের একটি নিজস্ব নিরাপত্তা কোড আছে, যা দিয়ে যাচাই করা হয় যেসব বার্তা ও কল আপনি করছেন সেগুলো দুই দিক থেকে এনক্রিপ্টেড।

লক্ষ্য করুন: এই যাচাইয়ের প্রক্রিয়াটি ঐচ্ছিক এবং এটা শুধুমাত্র আপনার বার্তা যে দুই দিক থেকে এনক্রিপ্টেড সেটা নিশ্চিত করতে ব্যবহার করা হয়।

এই কোড পরিচিতির তথ্যের স্ক্রিনে QR কোড হিসেবে এবং ৬০ অঙ্কের নাম্বার হিসেবে দেখতে পাবেন। এই কোডগুলো প্রতিটি চ্যাটের জন্য আলাদা আলাদা এবং প্রতিটি চ্যাটের কোডের সাথে তুলনা করে দেখতে পারেন এটা নিশ্চিত করার জন্য যে, যেসব বার্তা আপনি পাঠাচ্ছেন সেগুলো দুই দিক থেকে এনক্রিপ্টেড। এই নিরাপত্তা কোড আসলে বিশেষ কী এর দৃশ্যমান সংস্করণ- এবং নিশ্চিত থাকুন, এটা আসল কী না। সেটি সবসময়েই গোপন থাকবে।

একটি চ্যাট যে আসলেই দুই দিক থেকে এনক্রিপ্টেড সেটা যাচাই করতে

  1. চ্যাটটি খুলুন।
  2. পরিচিতির তথ্যের স্ক্রিন খোলার জন্য পরিচিতির নামের উপরে আলতো চাপুন।
  3. QR কোড এবং ৬০ অঙ্কের নাম্বার দেখতে এনক্রিপশন আলতো চাপুন।

যদি আপনি এবং আপনার পরিচিতি পাশাপাশি থাকেন, তাহলে একজন অপরজনের QR কোডটি স্ক্যান করে দেখতে পারেন, অথবা ৬০ অঙ্কের নাম্বারটি চোখ দিয়ে পড়তে পারেন। যদি আপনি QR কোডটি স্ক্যান করেন, এবং কোডটি এক হয় তাহলে একটি সবুজ চেক চিহ্ন আসবে। যেহেতু তারা মিলে যাচ্ছে, আপনি নিশ্চিত হতে পারেন অন্য কেও আপনার বার্তা বা কল দেখছে বা শুনছে না।

যদি কোড না মিলে, তাহলে সম্ভবত আপনি অন্য কোন পরিচিতির কোড স্ক্যান করছেন, অথবা অন্য কোন ফোন নাম্বার স্ক্যান করছেন। যদি আপনার পরিচিতি সাম্প্রতিক সময়ে WhatsApp পুনরায় ইন্সটল করে থাকে, অথবা ডিভাইস পরিবর্তন করে থাকে তাহলে আমরা সুপারিশ করব আপনি একটু নতুন বার্তা পাঠিয়ে কোডটি রিফ্রেশ করুন এবং এরপরে কোডটি স্ক্যান করুন।

নিরাপত্তা কোড পরিবর্তন সম্পর্কে আরও জানতে এই প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নের আর্টিকেলটি পড়ুন।

যদি আপনি ও আপনার পরিচিতি একে অপরের কাছাকাছি না থাকেন, আপনি তাহলে ৬০ অঙ্কের নম্বরটি তাকে পাঠাতে পারেন। আপনার পরিচিতিকে জানান যে কোডটি পাওয়ার পরে সেটি কোথাও লিখে রাখতে এবং পরিচিতির তথ্যের স্ক্রিনে এনক্রিপশন এর ভিতরে থাকা ৬০ অঙ্কের কোডের সাথে চোখে মিলিয়ে দেখতে। Android, iPhone এবং Windows ফোনে, আপনি শেয়ার বোতামের মাধ্যমে QR কোড/৬0 অঙ্কের নম্বরটি SMS, ইমেইল ইত্যাদির মাধ্যমে শেয়ার করতে পারবেন।

WhatsApp কেন দুই দিক থেকে এনক্রিপশন সুবিধা প্রদান করে এবং মানুষকে নিরাপদ রাখা বলতে আসলে কি বুঝায়?

WhatsApp যে সেবা আপনারদের প্রদান করে, সেটার জন্য নিরাপত্তা খুবই প্রয়োজনীয় বিষয়। ২০১৬ সালে আমরা সব বার্তা ও কলের জন্য দুই দিক থেকে যাচাই প্রক্রিয়ার কাজ শেষ করি যেন কেও আপনার কথোপকথনে কি আছে তা দেখতে না পায়, এমনকি আমরাও না। এরপর থেকে ডিজিটাল নিরাপত্তা রক্ষা আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়েছে। আমরা এমন বহু ঘটনা দেখেছি যেখানে হ্যাকাররা অবৈধভাবে মানুষের গোপন ডেটা সংগ্রহ করেছে এবং প্রযুক্তির অপব্যবহার করে চুরি করা তথ্য দিয়ে মানুষের ক্ষতির চেষ্টা করছে। সেজন্য আমরা যখন কোন নতুন বৈশিষ্ট্য এনেছি - যেমন ভিডিও কলিং অথবা স্থিতি - আমরা এসব বৈশিষ্ট্যেও দুই দিক থেকে এনক্রিপশন প্রয়োগ করেছি।

WhatsApp এ থাকা কল বা বার্তা পড়ার কোন ক্ষমতা WhatsApp এর নেই। এর কারণ হল এনক্রিপশন ও ডিক্রিপশন সম্পূর্ণভাবে আপনার ডিভাইসে হয়ে থাকে। বার্তা পাঠানোর আগেই, একটি ক্রিপটোগ্রাফিক লক দিয়ে এটি সুরক্ষিত থাকে, এবং শুধু প্রাপকের হাতেই সেটি খোলার চাবি আছে। এছাড়াও, প্রত্যেক বার্তার সাথে এই চাবিটিও পরিবর্তন হয়। এ সবই হয় পর্দার আড়ালে, আর আপনার কথোপকথন যে আসলেই নিরাপদে আছে সে আপনি নিশ্চিত হতে পারবেন আপনার ডিভাইসের নিরাপত্তা যাচাইয়ের কোডে গিয়ে। এটি কিভাবে কাজ করে সেটি সম্পর্কে আরও জানতে পারবেন আমাদের white paper এ।

স্বভাবতই, মানুষ জিজ্ঞেস করে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার জন্য এই এনক্রিপশন কিভাবে কাজ করবে। পুরো পৃথিবীতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো যেভাবে সবাইকে নিরাপদে রাখছে, WhatsApp তার মূল্যায়ন করে। আমরা প্রযোজ্য আইন এবং নীতির উপর ভিত্তি করে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার অনুরোধগুলি সাবধানে পর্যালোচনা, যাচাই এবং প্রতিক্রিয়া প্রদান করি এবং আমরা জরুরী অনুরোধগুলিকে অগ্রাধিকার দেই। আমাদের শিক্ষার প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে, আমরা সংগৃহীত সীমিত তথ্য এবং কীভাবে তারা হোয়াটসঅ্যাপের অনুরোধগুলি করতে পারেন সে সম্পর্কে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার জন্য তথ্য প্রকাশ করেছিঃ, যা আপনি এখানে পড়তে পারবেন।

আরও তথ্যের জন্য WhatsApp নিরাপত্তা পড়ুন।

চিয়ার্স,
WhatsApp সাপোর্ট টীম